ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪


স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ

স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকার আশুলিয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রীকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে স্বামী।

রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে আশুলিয়ার নরসিংপুরের ইটখোলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূ শামসুন্নাহার বেগম (২২) জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার চরভদ্রাসন গ্রামের আব্দুস সালামের মেয়ে। সে পোশাক শ্রমিক স্বামী জলিল হোসেনের সাথে আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতো।

আটক জলিল হোসেন (৩০) জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার বাঘাডোবা গ্রামের শাহজাহান হোসেনের ছেলে।

নিহতের চাচা মোহাম্মদ লুৎফর রহমান জানান, গত চার দিন আগে ভাতিজি শামসুন্নাহার ও তার জামাইয়ের সাথে পারিবারিক কলহ হয়। এঘটনার পর রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে জলিল তার শ্বশুর বাড়িতে ফোন করে তার স্ত্রী শামসুন্নাহার মারা গেছে বলে জানায়। পরে সে আশুলিয়া থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করে। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই নিহতের লাশ উদ্ধার।

সোমবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি ঢাকার সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিরাজুল ইসলাম জানান, পারিবারিক কলহের জেরে ওই গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার স্বামী জলিল থানায় এসে আত্মসমর্পণ করেছে। রাতেই জলিলের তথ্য অনুযায়ী ভাড়া বাসা থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

এঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *