এপ্রিল ২৫, ২০২৪


ঢাকা জেলা তাঁতী লীগ উত্তরের উদ্যোগে আশুলিয়া থানা তাঁতী লীগের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

ঢাকা জেলা তাঁতী লীগ উত্তরের উদ্যোগে আশুলিয়া থানা তাঁতী লীগের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

সাভার প্রতিনিধিঃ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি,মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আশুলিয়া থানা তাঁতী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা,দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।আশুলিয়া থানাধীন ইয়ারপুর ইউনিয়নের জামগড়া এলাকায় শুক্রবার বিকালে এই দোয়া মাহফিল আলোচনা সভা ও গণভোজ অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে আশুলিয়া থানা তাঁতী লীগের সভাপতি ইব্রাহিম খলিল বাদলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা উত্তর তাঁতী লীগের সভাপতি,কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হাজী মোবারক হোসেন খোকন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা জেলা উত্তর তাঁতী লীগের সভাপতি হাজী মোঃ মোবারক হোসেন খোকন বলেন,১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগষ্ট আমাদের প্রিয় নেতা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, যার জন্ম না হলে বাংলাদেশ হতোনা,মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল,সহধর্মিণী শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব সহ পরিবারের সকলকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। যারা পাকিস্তানিদের পক্ষ হয়ে দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র করেছে, আমাদের জাতির পিতাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে, যারা হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে এদের মধ্যে কিছু কিছু আসামি এখনো বিদেশে পালিয়ে আছে তাদেরকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে। জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তাঁতী লীগের পক্ষ থেকে জোর দাবি যত শিঘ্রই সম্ভব সেইসব খুনিদের বাংলার মাটিতে ফিরিয়ে এনে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি তথা, ফাঁসি কার্যকর করা হোক।
এসময় তিনি আরও বলেন,আপনারা জানেন আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে এই পর্যন্ত অনেকবার মারার চেষ্টা করেছে দেশবিরোধী, জামাত, শিবির,রাজার বাহিনীর ষড়যন্ত্রকারীরা। কিন্তু তারা ব্যর্থ হয়েছে।২০০৪ সালের ২১ সে আগস্ট মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপরে যে বর্বোরোচিত গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল, আল্লাহর অশেষ রহমতে এবং বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের দোয়ায় তিনি এখনও সহিসালামতে আছেন এবং তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশে আজ উন্নয়নশীলদেশে পরিনত হয়েছে,বাঙালি জাতি আজ বিশ্বের কাছে মাথা উচু করে দাড়িয়েছে। আগস্ট মাস আমাদের কাছে শোকের মাস।বাংলাদেশ তাঁতী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মোঃ শওকত আলী, সাধারণ সম্পাদক খগেন চন্দ্র দেবনাথ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান এমপির নির্দেশনায় ঢাকা জেলা উত্তর তাঁতী লীগ মাস জুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে। আপনারা জানেন, বাংলাদেশ তাঁতী লীগ বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া একটি সংগঠন। তাই বাংলাদেশ তাঁতী লীগ এই শোকের মাসে মাসব্যাপী বিভিন্ন কার্যক্রম সুন্দরভাবে সুসম্পন্ন করে চলেছে। কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা এই সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মাঝে চলেনা তেমনি কোন প্রকারের কোনো নেশা কিংবা চাঁদাবাজি এই সংগঠনের কাউকে স্পর্শ করতে পারেনি।ঢাকা জেলা উত্তর তাঁতী লীগের আওতাধীন সাভার,আশুলিয়া ও ধামরাই এলাকার সকল তাঁতী লীগের নেতৃবৃন্দ স্বচ্ছ ভাবে সংগঠনকে পরিচালনা করে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে কাজ করে যাচ্ছেন।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা উত্তর তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রহমান, রোজ উদ্দিন খোকন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আব্দুর রহমান, কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ জাবেদ নিয়াজ, আশুলিয়া থানা তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি মুরাদ মাতব্বর, আব্দুল আল মামুন মিলন,জাহিদুল ইসলাম টিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক এসএম হযরত, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম কাদরী, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শাহানুর আলম, সদস্য আমিনুল ইসলাম মোঃ শাকিল, নজরুল ইসলাম সহ আরো অনেকে এসময় উপস্থিত ছিলেন।এ সময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার পরিবারের সকল সদস্যের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মুনাজাত করা হয় ও জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্থ ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *